BMI কি? এবং BMI এর মাধ্যমে কিভাবে আপনার ওজন নির্ণয় করবেন

BMI কি? এর সঠিক মান কত? এবং এর মাধ্যমে কিভাবে ওজন নির্ণয় করতে হয়
BMI কি এবং BMI এর মাধ্যমে কিভাবে ওজন নির্ণয় করতে হয়

BMI কি? এবং BMI এর মাধ্যমে কিভাবে ওজন নির্ণয় করতে হয়

BMI যার পূর্ণরুপ হচ্ছে Body Mass Index.যার মাধ্যমে  কারো শরীরের ওজন আর উচ্চতার অনুপাত বের করা হয়, তারপর নির্ধারণ করা হয় তার  ওজন স্বাস্থ্যবান কিনা।

একজন ছেলের উচ্চতা পাঁচ ফুট এবং তার ওজন পঞ্চাশ কেজি তাকে লোকে স্বাস্থ্যবান বলে।আবার আরেকজন ছেলের উচ্চতা ছয় ফুট এবং  তার ওজন বায়ান্ন কেজি, প্রথমজনের চেয়ে দুই কেজি বেশি তবু লোকে তাকে রোগা বলে।সে হয়তো অভিযোগ করে বলে,তার ওজন প্রথমজনের থেকে দুই কেজি বেশি সুতরাং সে বেশি স্বাস্থ্যবান।

তার দাবি কি আসলেই ঠিক? 

নাহ্ ওজন বেশি হলেই স্বাস্থ্যবান বলা যাবে না বা কম হলেই রোগা বলা যাবে না।এখন কিসের উপর ভিত্তি করে একজন ব্যক্তির স্বাস্থ্যবান ওজন আছে কিনা তা বোঝা যাবে?

হ্যাঁ এই বিষয়টিই হচ্ছে BMI বা Body Mass Index.

BMI কিভাবে হিসাব করতে হয়?

BMI হিসাব করার জন্য,একজন ব্যক্তির ওজন পরিমাণ করতে হবে।ওজন অবশ্যই কিলোগ্রাম বা কেজি এককে নিতে হবে।তারপর তার উচ্চতা পরিমাপ করা হবে।উচ্চতা যেই এককেই নেওয়া হোক না কেনো সেটাকে মিটার এককে কনভার্ট করে নিতে হবে,  প্রাপ্ত ফলাফলকে বর্গ করতে হবে।অতঃপর ওজনকে সেই বর্গকরা উচ্চতা দিয়ে ভাগ করতে হবে।

গাণিতিকভাবে যদি বলি,

BMI এর গাণিতিক হিসাব

BMI এর মান অনুযায়ী স্বাস্থ্য নির্ণয়

আগেই বলেছি BMI এর মান বের করে বুঝা যায় একজন ব্যক্তি স্বাস্থ্যবান নাকি।এক্ষেত্রে WHO(বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা) নির্ধারিত একটি মানের স্ট্যান্ডার্ড চার্ট রয়েছে।সেই চার্ট দেখে আমরা নির্ণয় করতে পারবো স্বাস্থ্যের অবস্থা।

BMI এর মান

BMI মানের বিশ্লেষণ

কারো BMI এর মান যদি ১৮.৫০ এর কম হয় তাহলে তাকে রোগা বলা যাবে এবং সে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে।আর বিএমআই মান যদি ১৮.৫০-২৪.৯ এর মধ্যে থাকে তাহলে সেটা স্বাভাবিক ওজন।এই BMI এর মানের মানুষ কে সুস্থ সবল স্বাস্থ্যের অধিকারী বলা যাবে।

আর কারো বিএমআই যদি ২৫-২৯.৯ এর মধ্যে থাকে তার ওজন অতিরিক্ত।সে প্রাথমিক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে।আর কারো বিএমআই ৩০-৩৯.৯ এর মধ্যে থাকলে সে স্থুল বা obese । আর কারো বিএমআই ৪০ এর বেশি হলে সে অতিরিক্ত স্বাস্থ ঝুঁকিতে রয়েছে।

BMI এর সাথে স্বাস্থ্যের সম্পর্ক

Body Mass Index যদি বেশি হয় তাহলে তার সাথে কিছু রোগ হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।যেমন,

১.হাই ব্লাড প্রেসার(উচ্চ রক্তচাপ)

২.হৃদরোগ

৩.ডায়াবেটিস

৪.স্ট্রোক

৫.বিভিন্ন রকমের ক্যান্সার

বিএমআই কম হলেও নানারকম স্বাস্থ্য সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে।যেমন,

১.পুষ্টিহীনতা 

২.রক্তশূন্যতা

৩.নিম্ন রক্তচাপ

৪.ইমিউনিটিতে সমস্যা,রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়া।

বিএমআই এর মান কিভাবে স্বাভাবিক রাখা যায় সে সম্পর্কিত আর্টিকেল পড়তে চাইলে নিচের এই লিংকে গিয়ে পড়ে আসতে পারেন।”লিংক

সবশেষে বলা যায়, কারো ওজন দেখেই স্বাস্থ্য সম্পর্কে মন্তব্য করা ঠিক নয় বরং তার বিএমআই বা তার উচ্চতা অনুযায়ী ওজন কেমন তা নির্ণয় করে তারপর বলতে হবে সে স্বাস্থ্যবান নাকি স্থুল বা মোটা, নাকি অতিরিক্ত রোগা পাতলা। 

ধন্যবাদ।

লিখেছেন
Shaon Ashraf
শাওন আশরাফ -এমবিবিএস মেডিকেল স্টুডেন্ট,ঢাকা,বাংলাদেশ -স্বাস্থ্য সম্পর্কিত আর্টিকেল লেখক -ইউটিউবার -ব্লগার
এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
এখানে ব্লগ খুঁজুন
ক্যাটেগরিগুলো
ব্লগটি আপানার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

- নতুন ব্লগের আপডেট পেতে

Subscribe করুন সম্পূর্ণ ফ্রি

আরও প্রয়োজনীয় পোস্ট পেতে নিচের বক্সে ইমেইল পাঠান